আল্লামা তাকী উসমানী (হাফিঃ)

সুবাস জড়ানো অলিন্দে-৯ | আহমাদ সাব্বির

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr

৮১.  অনেক সময় আমরা দৈনন্দিন নফল আমলের তালিকা করে রাখি: অমুক সময়ে এত পারা তিলাওয়াত করবো, দিনের অমুক মুহূর্তটাতে এত রাকাত নফল নামাজ পড়বো, এই সময়টাতে ব্যস্ত থাকব রবের জিকিরে৷ এটা খুবই ভালো৷ মুমিনের থেকে এমন পরিপাটি জীবন কাম্য৷ তবে প্রকৃত মুমিন হবার জন্যে সময়ের চাহিদাও বুঝতে হবে৷ অকস্মাৎ কেউ রোগাক্রান্ত হয়ে পড়লো, কেউবা অতীব প্রয়োজনে আমার সান্নিধ্য কামনা করে বসলো তখন দীনের চাহিদা হলো ওই রোগাক্রান্তের শুশ্রুষাতে ব্যাপৃত হওয়া৷ ওই প্রয়োজনগ্রস্তের পাশে দাড়ানো৷ তখনও যদি আমরা চিন্তা করি— অমুকের বিপদ সংকুল পরিস্থিতে তার পাশে দাঁড়াতে গেলে আমার দৈনন্দিনকার অজিফা ছুটে যাবে, আমার রুটিনবদ্ধ আমল এলোমেলো হয়ে যাবে— তবে এটা কেবল আমাদের দির্বুদ্ধিতাই হবে না; বরং ডেকে আনবে আল্লাহ তা’লার নারাজি৷

৮২. আমার পরম শ্রদ্ধেয় উস্তাদ, মাওলানা মাসীহুল্লাহ খান সাহেব- আল্লাহ তালা তাঁর মর্যাদা বৃদ্ধি করে দিন- প্রায়ই এক বিস্ময়কর কথা বলতেন৷ যা আজকের দুনিয়াতে আমাদের অনেকেরই পছন্দ নাও বা হতে পারে৷ তিনি বলতেন— আজ আমরা আলেম ও হতে আসি নিজের কামনাকে পূর্ণ করবার জন্যে৷ সেখানে অনুপস্থিত থাকে দীনের চাহিদা৷ কারুর মা অসুখে পড়ে আছে, বাড়িতে দ্বিতীয় কেউ নেই তার শুশ্রুষা করবার৷ কিন্তু সে মাকে ফেলে চলে এসেছে আলেম হতে৷ অথচ এখানে দীনের চাহিদা ছিল যে, ছেলে বাড়িতে বসে রোগাক্রান্ত মায়ের সেবা করে যাবে৷

৮৩.  ভালো করে শুনে রাখুন— নিজের কামনা-বাসনা চরিতার্থ করবার নাম দীন নয়৷ সে কামনা বাহ্যত যতই কল্যাণকর মনে হোক না কেন!

৮৪.  তদ্রুপ দেখা যায় তাবলিগের ক্ষেত্রে৷ নিঃসন্দেহে দীনের প্রচার মহৎ কাজ৷ তাবলিগ খুবই প্রয়োজনীয় ও উত্তম আমল৷ তাই বলে রুগ্ন স্ত্রীকে ঘরে ফেলে? ক্ষুধার্ত দুধের শিশুকে অসহায় রেখে? এটা দীন নয়৷ এটা কেবল নিজস্ব অভিলাষ৷ দীন এটার নাম নয়৷

৮৫. আজ চারপাশে কেবল শখ পূরণের ছড়াছড়ি দেখে উঠি৷ কারও মৌলভি হবার শখ, তো কারও শখ মুফতি হবার৷ কারও শখ জিহাদের ময়দানে লড়াই করবার কারওবা শখ আবার দাওয়াতের মেহনাতে জান কুরবান করে দেবার৷ কেউ দীনের চাহিদা খুঁজে দেখে না৷ এই মুহূর্তে, বর্তমান পরিস্থিতে তার ওপর কী হুকুম, দীন তার থেকে কী চায়— এসব নিয়ে কেউ মাথা ঘামায় না৷ সবাই ব্যস্ত কেবল অভিলাষ পূরণে৷

৮৬.  এইখানেই প্রয়োজন হয় একজন খোদাপ্রেমি রাহবারের; একজন দীনদার আলেমের৷ যে সঠিক দীনের প্রতি দিক নির্দেশনা দিবে৷ যে ব্যক্তির সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে তাকে বলে দিবে তার বর্তমান করণীয়৷ দীনের সঠিক ধারণা রাখে এমন রাহবার ছাড়া দীনের চাহিদা মতো আমল করা দুঃসাধ্যই বটে!

৮৭. অনেক জিকিরকারীকে আজানের সময়ও জিকিরে রত দেখা যায়৷ জিকির বন্ধ করে ধ্যানের সাথে আজান শোনাকে তারা সময়ের অপচয় ভাবে৷ তাদের এই ভ্রান্তির ওপর করুণা হয় আমার৷ আজানের সময় মুমিন যে সে ধ্যানের সাথে মুয়াজ্জিনের উচ্চারিত প্রতিটি শব্দ শুনবে এবং তার জবাব দিবে পরম মমতায়৷

৮৮. সমাজে বিদাআতের প্রচলনও হয় ইবাদাতের নামে এই অভিলাষ পূরণ করতে যাবার মাধ্যমে৷

৮৯. সর্বাবস্থায় আল্লাহ তালার শুকরিয়া আদায়ে অভ্যস্ত হয়ে উঠুন৷ উঠতে বসতে মহান রবের প্রতি শুকরিয়া জ্ঞাপনে অভ্যস্ত যে বান্দা শয়তানের যাবতীয় কুমন্ত্রণা থেকে সে নিরাপদ থাকে৷

৯০. প্রতি রাতে ঘুমোবার কালে চোখ বুজে একবার স্মরণ করুন— দিনভর মহান রবের কোন কোন নেয়ামাত আপনি প্রাপ্ত হয়েছেন৷ তারপর শুকরিয়া আদায় করুন রবের সমীপে সেই তাবৎ নেয়ামাতের বিনিময়ে৷ দেখবেন— জীবন হয়ে উঠবে আরও স্বাচ্ছন্দ্যময়৷ আরও সুন্দর৷ আরও অধিক প্রাণবন্ত৷

সুবাস জড়ানো অলিন্দে সব পর্ব একত্রে

Facebook Comments

Write A Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Pin It
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: