Category

প্রতিযোগিতা-১

Category

বেশ দীর্ঘ সময় পূর্বে শুরু হয়েছিল সংকলন প্রতিযোগিতা-১। প্রতিযোগিতার লেখাগুলো ইতিমধ্যে সংকলন সাইটে পাবলিশ করা হয়েছে। আশানুরূপ অংশগ্রহণ না হলেও আমরা বেশ ভালো সাড়া পেয়েছি আলহামদুলিল্লাহ। অংশগ্রহণকারী সকলকে ধন্যবাদ। প্রতিযোগিতায় বেশ ভালো কিছু লেখা এসেছে। প্রতিযোগীগণ পরিশ্রম করে লেখা তৈরি করেছেন। কিন্তু, যথাযথ নিয়ম অনুসরণ না করায় অনেক ভালো লেখাও আমাদেরকে বাদ দিতে হয়েছে। আবার অনেকের লেখা মানসম্পন্ন না হওয়ায় বাদ দিতে হয়েছে। আল্লাহ তাআলা সবাইকে জাযায়ে খায়র দান করুন।…

বিশ শতকের আলো : উচ্ছল উন্মেষ বিশ শতকের ইতিহাস অনেক দীর্ঘ। অনেক কিছুই এখনও আমাদের চোখের সামনে। ১৯৪৭ সালের দেশভাগের মধ্য দিয়ে ব্রিটিশ শাসনের অবসান হয়। বাংলার সীমানা অনেকটা খাটো হয়ে আসে। অনেক বাঙালি লেখক বাইরেই থেকে যান। এরপর আসে ১৯৫২ সাল। বাংলার ভাষা আন্দোলন। রফিকউদ্দিন, আবদুস সালাম, আবুল বরকত, আব্দুল জব্বার, শফিউর রহমান শফিক ও আউয়াল সহ বহু মুসলিম বীর সন্তানের শাহাদাতের বিনিময়ে বাংলা ভাষা লাভ করে তার সম্পূর্ণ…

আরাকানে বাংলা সাহিত্য : উপরোক্ত সবাই ছিলেন বাংলার অধিবাসী। মুঘল আমলে বাংলার পার্শ্ববর্তী অঞ্চল আরাকান ও ত্রিপুরা রাজ্যও রাজনৈতিক কারণে এই প্রদেশের সাথে জড়িত ছিল। বহু শতাব্দীব্যাপী আরাকানে অসংখ্য মুসলমান বসতি স্থাপন করেন এবং সেখানে মুসলিম সংস্কৃতির প্রচলন করেন। আরাকানে মুসলিম সংস্কৃতি এতটাই প্রভাব বিস্তার করেছিল যে, বোদ্ধ রাজারা মুসলিম নাম ও উপাধিও গ্রহণ করতে শুরু করেন। তারা বাংলা থেকে আগত বিদ্বান ও কবিদের আরাকানে বসতি স্থাপন করতে উৎসাহিত করতেন।…

ঘটনার শুরু : ১৯১৩ সনের ২৩ ই জানুয়ারী। তুর্কী মন্ত্রিসভার এক জরুরী বৈঠক আহবান করা হয়েছে দলমাবাচ প্রাসাদে। একে একে তুর্কী মন্ত্রীগণ অনুষ্ঠানস্থলে এসে সমবেত হয়েছেন। আজকের অনুষ্ঠানের আহ্বায়ক বর্ষীয়ান তুর্কী রাজনীতিবিদ কামাল পাশা। শুরুতেই ইউরোপিয়ান শাসকবর্গের প্রশংসায় কাসিদা পাঠ করা হলো। সেমিনারের সভাপত্বিত করার জন্য গাজী মাহমুদ শওকতকে অনুরোধ জানানো হলো। হঠাত গিলিপলি থেকে আঞ্জুমানে এত্তেহাদ ওয়া তারাক্কীর তরফ থেকে সকাল সাতটায় একটি তারাবার্তা এলো, খবরদার! ঐ চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর…

ইসলামে আকিদা-বিশ্বাস সহিহ করা এবং তাতে অটল থাকার গুরুত্ব অপরিসীম। যাদের আকিদা-বিশ্বাস সহিহ তারাই হকপন্থী, তারাই জান্নাতি। আর যারা হকপন্থী নয়, তারাই জাহান্নামি। রাসুল (সা.)-এর নিম্নোক্ত হকপন্থী বাতিলপন্থীদের সম্পর্কে বলা হয়েছে, تفرقت الیهود علی احدی و سبعین فرقة او اثنتین و سبعین فرقة و النصاری مثل ذالک وتفرق امتی علی ثلاث وسبعین فرقة وفی روایة کلهم فی النار الا واحدة – قالوا من هی یا رسولله؟ قال ما انا علیه…

জুনাইদ জামশেদ। পাকিস্তানের পপ-তারকাদের অন্যতম। জীবনের একটি বড় অংশ যাঁর বিপথে কেটেছে। পরে তার উপর আল্লাহর সুদৃষ্টি পড়েছে। ফলে তাবলীগ জামাতের উছিলায় হিদায়াতপ্রাপ্ত হয়েছেন। অন্ধকার দূরীভূত হয়েছে তাঁর জীবন থেকে; আল্লাহর অনুগ্রহে আলোর ফোয়ারা কুলকুল করে বইতে শুরু করল তাঁর ছন্নছাড়া জীবনে। ফিরে পেয়েছেন সরল পথের দিশা; একমাত্র মুক্তির পথ সিরাতুল মুসতাকিম। চিত্রাল থেকে ইসলামাবাদে যাওয়ার পথে বিমান দুর্ঘটনায় ইন্তেকাল করেন তিনি। আল্লাহ তাঁকে জান্নাতুল ফিরদৌসের উচ্চ মকাম দান করুন।…

মানুষের যেমন দৈহিক রোগ থাকে, তেমনি আত্মিক রোগও থাকে। দৈহিক রোগের জন্য যেমন ডাক্তারের শরণাপন্ন হতে হয় তেমনি আত্মিক রোগের জন্যও আত্মিক চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হয়। দৈহিক রোগ থেকে আত্মিক রোগ বেশি ক্ষতিকর। দৈহিক রোগের কারণে সর্বোচ্চ ইহকালীন ক্ষতির সম্ভাবনা থাকে। কিন্তু আত্মিক রোগের কারণে ইহকালীন ও পরকালীন উভয় ক্ষতির আশংকা থাকে। আত্মিক রোগ দূরীকরণের লক্ষ্যে যে চেষ্টা-সাধনা করা হয় তাকে তাযকিয়া বা আত্মশুদ্ধি বলে। সাইয়েদ আবুল হাসান আলী নদভীর…

শিবাজিকে ভারতের কে না চেনে! ছবি, নাটক, কার্টুন, প্রবন্ধ—সব জায়গায় শিবাজির “শিবা” নামের অবাধ বিচরণ। সে ছিল মারাঠা জাতির সর্দার। মারাঠাদের ডাকাতির কথা সর্বজনবিদিত। ডাকাতি করে গ্রামের পর গ্রাম বিরান করে করে ছেড়েছিল এরা। মারাঠা বর্গিদের নিষ্ঠুর অত্যাচারে মানুষ এত আতঙ্কগ্রস্ত ছিল যে; কচি-কচি বাচ্চাদের কান্না থামাবার জন্য বাংলার মায়েরা এখনও তাদের অত্যাচারের কথা তুলে ধরে- ছেলে ঘুমাল পাড়া জুড়াল বর্গি এলো দেশে, বুলবুলিতে ধান খেয়েছে খাজনা দিবো কিসে। সে…

ভৌগলিক অবস্থানের সাথে যে ভাষার একটা গভীর সম্পর্ক রয়েছে, এটা মোটামুটি সব গবেষকই স্বীকার করেন। স্থান পরিবর্তনের পাশাপাশি বর্ণ, স্বভাব চরিত্র ও উচ্চারণ ভঙ্গিরও পরিবর্তন ঘটে। একেক জায়গার মানুষের জন্য একেক ধ্বনি উচ্চারণ করা সহজ। মাটির ভিন্নতাই এসব নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। আর এই ভিন্নতা নতুন উদ্ভূত কোন বিষয় নয়। বরং এটা একেবারে সৃষ্টি লগ্নের সেই আদিম যুগ থেকেই চলে আসছে। কুরআনের একটি আয়াতকে দলীল হিসাবে পেশ করা যেতে পারে। আল্লাহ…

‘তাসাউফ’ এর পরিচয়:  “তাসাউফ” শব্দটি “সূফুন” (صوف) শব্দমূল থেকে গৃহীত। যার মূল অর্থ হচ্ছে, পশমের পরিচ্ছদ গ্রহণ করা। পরবর্তীতে সেটা সূফী হওয়া বা সূফীয়ায়ে কেরামের আখলাকে নিজেকে সুসজ্জিত করার অর্থে ব্যবহৃত হয়েছে। আরবি প্রসিদ্ধ ডিকশনারি “মু’জামুল ওয়াসিতে” তাসাউফের অর্থ করা হয়েছে এভাবে— التَّصوُّفُ: طريقة سلوكية قوامها التقشف والتحلي بالفضائل، لتَزْكُوَ النفسُ وتسموَ الروح. “তাসাউফ হল একটি আদর্শ বা নীতি, যার মূল ভিত্তি হচ্ছে সংযম এবং উত্তম গুণাবলি দ্বারা সুসজ্জিত হওয়া,…

Pin It
error: Content is protected !!