Archive

October 2020

Browsing

মাদরাসা বলতে আমরা বুঝি এমন ব্যবস্থাপনাকে যেখানে ছাত্রদের থাকার জন্য ভবন এবং তাদের প্রয়োজনীয় সকল উপকরণের ব্যবস্থা রয়েছে। যার দেখাশোনার সাথে জড়িত আছেন আলিমগণ। যারা একান্তভাবে দরস-তাদরিসে নিয়োজিত। চতুর্থ হিজরি শতাব্দী পর্যন্ত জামে মসজিদ্গুলোই ইলম শিক্ষার প্রধান কেন্দ্র হিসেবে গণ্য ছিল। ইলমচর্চার প্রধান কেন্দ্র ছিল তখন মসজিদে মসজিদে শাইখগণের মজলিস। এ মজলিস থেকেই শাইখগণ নিজেদের সুযোগ্য শাগরিদ গড়ে তুলতেন। সে সময়ে শিক্ষার সর্বোচ্চ স্তর ছিল শাইখের কাছ থেকে লিখে নেয়া।…

মদীনা। ৬৫ হিজরী। হজ্বের সফরে এসেছেন খলিফা আবদুল মালেক ইবনে মারওয়ান। একদিন দুপুরে মসজিদে নববীর পাশে বিশ্রাম নিচ্ছিলেন তিনি। বাইরে প্রখর রোদ। উত্তপ্ত হয়ে গেছে পথঘাট। খলিফার চোখে ঘুম নেমে এলো। এ সময় মসজিদে নববীতে হৈচৈ শুরু হলে খলিফার ঘুম ভেঙ্গে যায়। ‘দেখো তো মসজিদে নতুন কোনো মুহাদ্দিস এসেছে কিনা?’ খলিফা একজন প্রহরীকে পাঠালেন মসজিদে কী হচ্ছে দেখে আসার জন্য। প্রহরী মসজিদে এসে দেখলো একজন আলেম বসে তার ছাত্রদের দরস…

মুফতি সালমান মানসুরপুরি দা.বা.। হযরত হুসাইন আহমেদ মাদানী রহ.-র মেয়ের ঘরের নাতি । দারুল উলুম দেওবন্দের উস্তাদ ক্বারি উছমান সাহেবের সুযোগ্য সন্তান। বর্তমান ভারতের শাহী মুরাদাবাদের প্রধান মুফতি এবং সময়ের সাড়া জাগানো ফাতওয়া গ্রন্থ ‘কিতাবুন নাওয়াযিল’-র লেখক। উক্ত কিতাবে শিয়াদের বিষয়ে বেশকিছু ফতোয়া আছে সেখান থেকে কিছু ফতোয়ার চুম্বকংশ এখানে তুলে ধরা হলো। এক. শিয়াদের যে দল এই বিশ্বাসগুলো রাখে যেমন, ১. কুরআন বিকৃত হয়ে গেছে। ২. শায়খাইন তথা হযরত…

প্রশ্ন : শিয়াদের অপকর্ম তো স্পষ্ট। কিন্তু তাদের কাফের ফতোয়া দেওয়ার কারনগুলো কী কী ? একটু বিস্তারিত বললে উপকৃত হবো। এবং তাদের জবাইকৃত পশু ও তাদের সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হওয়া কী বৈধ? উত্তর : বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম। শিয়াদের কুফরীর কারণ অসংখ্য। তার মধ্যে সকল মানুষের নিকট যে বিষয়গুলো প্রসিদ্ধ এবং শিয়াদের প্রায় সব কিতাবে যে আকিদাগুলো লিপিবদ্ধ আছে তা নিম্নরূপ- ১. বর্তমান কুরআন বিকৃত। ২. আল্লাহ তায়ালার ব্যাপারে ‘আকিদায়ে বাদাহ’।…

১. সা’দ ইবনে উবাদা রাযিয়াল্লাহু আনহু। আনসারি সাহাবি। ইমাম বুখারি রহ. (২৫৬ হি.) বলেন, সা’দ ইবনে উবাদা বদরযুদ্ধেও অংশগ্রহণ করেছেন। খাযরাজের নেতা। বাইআতুল আকাবার রাত্রে যে-কজন ‘নকিব’ ছিলেন মদিনার, সা’দ ইবনে উবাদা রাযিয়াল্লাহু আনহু তাঁদের অন্যতম। কাফিরদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে আনসার বাহিনীর পতাকা থাকত সা’দ ইবনে উবাদার হাতে। নবীজির বড় প্রিয় সাহাবি তিনি। হাফেজ যাহাবি (৭৪৮ হি.) রহ. বলেন, সা’দ ইবনে উবাদা রাযিয়াল্লাহু আনহু ছিলেন সম্ভ্রান্ত সরদার। সবার আনুগত্য পাবার মতো।…

রাতের গভিরতা যত হয়, মাওলা পাকের কাছে গুনাহ মাফ করিয়ে নেওয়াটা ততই সহজ হয়৷ নির্জনে বান্দার কাকুতিমিনতি আল্লাহ খুব পছন্দ করেন। সমস্যায় জর্জরিত জীবনের যেকোনো প্রয়োজন পুরো যেনো বান্দাহ সে সময় করে নেই, তাই নিজেই বান্দাকে ঢাকতে থাকেন। এত গুরুত্বপূর্ণ সেই সময়গুলো খামখেয়ালি আর অলসতায় আমরা কাটিয়ে দেয়৷ রাতের একটি বড় সময় ফেসবুক,মেসেঞ্জার, ওয়াটসএপ আর ইউটিউবে কাটিয়ে দিতে পারি৷ ফেসবুকে দোয়া চেয়ে পোষ্ট আর ডিপ্রেশনের স্ট্যাটাস দিয়ে কিছু উপদেশ আর…

এক. সময়টা ১৯২৬ সাল। সকালের মিহি হাওয়ায় বাড়ির আঙ্গিনায় বসে আসেন শাহ সাহেব কাশ্মীরী রহ.। তন্ময় হয়ে কি যেনো ভাবছেন। জীবনের এই সন্ধিক্ষণে কি এক পেরেশানি যেনো ভিতরটা তার কুড়ে কুড়ে খাচ্ছে৷ বেশকিছুদিন যাবৎই শাহ সাহেবকে এমন দেখা যাচ্ছে। হঠাৎ করে কিসের যেনো এক ভাবনায় হারিয়ে যান৷তখন উপরের অবয়ব থেকেই বুঝা যায় ভিতরের এক জ্বালায় তিনি পুড়ে যাচ্ছেন৷ জীবনের পুরোটা সময় কাটিয়ে দিয়েছেন হাদিসে নববীর খেদমতে। ‘ওয়াবিহি হাদ্দাসানা’ ও ‘ক্বলা…

একটু ভেবে দেখেছেন—ছোট্টো একটি বাক্য আপনার জীবনে কতটা সৌভাগ্য বয়ে আনতে পারে? সেটা কি? তার আগে একটি বিষয় বলুন তো, যদি কখনো শুনতে পান, দুনিয়ার মধ্যে আপনার কোনো একান্ত পছন্দের মানুষ যিনি সম্মান মর্যাদায় এত উঁচু যে যাকে শুধু দূর থেকে ভালোবাসতে পারাটাই আপনার জন্যে গর্বের ও গৌরবের বিষয়। যার ভালোবাসা প্রকাশ্যে বা গোপনে, একান্ত আলোচনায় বা ফেসবুকে বলতে আপনার আনন্দ হয়। সম্ভব না, কিন্তু মনের অজান্তেই জীবনে একটি বার…

Pin It
error: Content is protected !!