Category

মাহদি হাসান

Category

ইমাম আবু হামিদ ইবনু মুহাম্মাদ ইবনু মুহাম্মাদ ইবনু আহমাদ আত তুসী আশ-শাফিয়ী আল-গাজালি। ইতিহাস যাকে ইমাম গাজালি নামে চিনে৷ গাজালি বলা হয় তাঁর জন্মস্থান গাজালার দিকে নিসবত করে৷ অনেকে তাঁকে ইমাম গাজ্জালিও বলে থাকেন৷ এই নিসবত করা হয় তাঁর পিতার পেশার প্রতি লক্ষ্য করে৷ উভয় নিসবতই সহিহ। ছিলেন ইসলামি ইতিহাসের সেই বিরলপ্রজ আলিমগণের একজন যারা পৃথিবীময় নিজেদের জ্ঞানের অবদান রেখে গেছেন৷ ইলমি পাণ্ডিত্য এবং চিন্তার গভীরতা ও শুদ্ধতায় উম্মাহকে করে…

আবু হানিফা রহ.বলেছেন, ‘সালিম (আবদুল্লাহ ইবনু ওমর রা.এর পুত্র) এর চেয়েও ইবরাহিম অধিক প্রাজ্ঞ। যদি সাহাবি হওয়ার শ্রেষ্ঠত্ব না থাকত, তবে আমি বলতাম ইবনু ওমর রা.এর চেয়েও ইবরাহিম অধিক প্রাজ্ঞ।’ (১) অনুবাদ করছিলাম। হঠাৎ এই লাইনগুলো লিখে চমকে যাই। ভাবতে থাকি কে এই ইবরাহিম, যার সম্পর্কে ইমামে আজম আবু হানিফা রহ. এত বড় মন্তব্য করলেন! চলুন জেনে নেই কে এই ইবরাহিম আর তাঁর সম্পর্কে ইমাম আজমের এমন মন্তব্যের কী রহস্য?…

চলছে বনু উমাইয়ার শাসনকাল। খেলাফতের মসনদে আসীন আবদুল মালিক ইবনু মারওয়ান। প্রতিদ্বন্দ্বী রোমের সম্রাটের কাছে এক দূতকে পাঠালেন তিনি। জরুরী বার্তা নিয়ে। এই দূতই আমাদের গল্পের নায়ক। তিনি কোনো সাধারণ ব্যক্তি নন। একজন বর্ষীয়ান আলেম। সাধারণত দূতেরা কোথাও গিয়ে বেশীদিন অবস্থান করতেন না। কিন্তু সে যাত্রায় রোমে তাঁর অবস্থান দীর্ঘায়ত হয়। অবশেষে ফেরার পালা আসে যখন, তখন রোম সম্রাট সেই দূতকে লক্ষ্য করে বলেন, আপনি কি রাজবংশের কেউ? দূত উত্তর…

আবু হানিফা রহ.বলেছেন, ‘ইবরাহিম সালিম (আবদুল্লাহ ইবনু ওমর রা.এর পুত্র) এর চেয়েও অধিক প্রাজ্ঞ। যদি সাহাবি হওয়ার শ্রেষ্ঠত্ব না থাকত, তবে আমি বলতাম ইবরাহিম ইবনু ওমর রা.এর চেয়েও অধিক প্রাজ্ঞ।’ (১) অনুবাদ করছিলাম। হঠাৎ এই লাইনগুলো লিখে চমকে যাই। ভাবতে থাকি কে এই ইবরাহিম, যার সম্পর্কে ইমামে আজম আবু হানিফা রহ. এত বড় মন্তব্য করলেন! চলুন জেনে নেই কে এই ইবরাহিম আর তাঁর সম্পর্কে ইমাম আজমের এমন মন্তব্যের কী রহস্য?…

মহান বাদশাহ আওরঙ্গজেব আলমগীরের মৃত্যুর সাথে সাথেই যেন নিভে যায় উপমহাদেশের মাটিতে ইসলামের দাপুটে দিন। সম্রাট জাহাঙ্গীরেরর আমল থেকেই শুরু হয়ে যায় ইংরেজ চক্রান্ত। এরপরের দিনলিপিগুলো যেন শুধু বেদনারই কালি দিয়ে লেখা। এক সময় উপমহাদেশের ক্ষমতা দখল করে ইষ্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি। শুরু হয় ভারতবর্ষের মুসলিমদের কষ্ট, সংগ্রাম এবং অবর্ণনীয় নির্যাতনের অধ্যায়। মুসলিম কখনো শির নত করে না। অত্যাচারের দাবানলের মুখে তাঁরা এগিয়ে আসেন বুক চেতিয়ে। মৃত্যুভয় দূরে ঠেলে দিয়ে। তাদের…

মাদরাসা বলতে আমরা বুঝি এমন ব্যবস্থাপনাকে যেখানে ছাত্রদের থাকার জন্য ভবন এবং তাদের প্রয়োজনীয় সকল উপকরণের ব্যবস্থা রয়েছে। যার দেখাশোনার সাথে জড়িত আছেন আলিমগণ। যারা একান্তভাবে দরস-তাদরিসে নিয়োজিত। চতুর্থ হিজরি শতাব্দী পর্যন্ত জামে মসজিদ্গুলোই ইলম শিক্ষার প্রধান কেন্দ্র হিসেবে গণ্য ছিল। ইলমচর্চার প্রধান কেন্দ্র ছিল তখন মসজিদে মসজিদে শাইখগণের মজলিস। এ মজলিস থেকেই শাইখগণ নিজেদের সুযোগ্য শাগরিদ গড়ে তুলতেন। সে সময়ে শিক্ষার সর্বোচ্চ স্তর ছিল শাইখের কাছ থেকে লিখে নেয়া।…

মাহে রমজান। ত্রয়োদশ হিজরি। চলছে ইসলামের দ্বিতীয় খলিফা ওমর ইবনুল খাত্তাব রা.এর স্বর্ণালী শাসনকাল। অন্ধকারের অমানিশাকে দূরে ঠেলে ইসলামের নতুন সকালকে প্রস্ফুটিত করতে সাহাবায়ে কেরাম রা.ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছেন বিভিন্ন প্রান্তে। আল্লাহর তরবারি খালিদ বিন ওয়ালিদ রা. তখন ছিলেন রোমকদের মূর্তিমান ত্রাস। সিরীয় অঞ্চলে তাঁর ঘোড়ার খুঁড়ের আওয়াজ শুনে ক্রমেই কেঁপে উঠছে রোমের প্রাসাদ। অপরদিকে আরেক বীর মুজাহিদ মুসান্না ইবনুল হারেসা তখন করে দিয়েছেন পারসিকদের রাতের ঘুম হারাম। কিসরার প্রাসাদে বিরাজ…

রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের হিজরতের পর কেটে গেছে চারটি বছর। সে বছর মক্কার বনু শামস গোত্রে আমের ইবনু কুরাইজ আল-আবশামির ঘরে জন্ম নিল শুভ্র সুন্দর এক শিশু। তিন বছর পর সপ্তম হিজরীতে রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মক্কায় এলেন উমরাতুল কাজার উদ্দেশ্যে। সেদিনের সেই ছোট্ট শিশুর বয়স এখন তিন। গুটিগুটি পায়ে হাঁটতে শিখেছে সবে। তাঁকে নিয়ে আসা হলো রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের কাছে। রাসুল তাঁকে দেখে বনু শামসকে…

রাসুলে আরাবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। আমাদের প্রিয়নবী। আল্লাহ তায়ালা তাঁকে আমাদের জন্য বানিয়েছেন উসওয়াতুন হাসানাহ তথা উত্তম আদর্শ। ‘নিশ্চয় আপনি মহান চরিত্রের অধিকারী’ বলে সাক্ষ্য দিয়েছেন তাঁর উত্তম চরিত্রের। শৈশব থেকে নিয়ে রফীকে আলার সান্নিধ্যে গমনের আগ পর্যন্ত তাঁর পুরো জীবনচরিতই আমাদের জন্য অনুসরণীয়। তাই তাঁর ইন্তেকালের পর থেকে নিয়ে আজ পর্যন্ত বহু ভাষায়, বহু লেখকের হাতে হয়েছে তাঁর মহান জীবনের চর্চা। যার শুরু হয়েছে আরবি ভাষায়। মুসলিমদের হাতে।…

১. ফজরের নামাজ হয়ে গেছে। মদীনার পরিবেশ গায়ে মেখে আছে ফজর পরবর্তী পরিবেশের পবিত্র স্নিগ্ধতা। এমনি এক সময়ে মুখে আল্লাহ আল্লাহ জপতে বিধবা বৃদ্ধার ঘরের দরজায় কড়া নেড়েছেন সাহাবি। বৃদ্ধা দরজা মেলতেই সাহাবি তাকে বললেন, মা, আমি এসেছি আপনার ঘরের কাজগুলো করে দেয়ার জন্য। বৃদ্ধা বললেন, প্রতিদিন যে লোকটি এসে আমার ঘরের কাজ করে দিয়ে যায়, সে তো ইতিমধ্যে করে দিয়ে গেছে। সাহাবি তাজ্জব বনে গেলেন। ভেবেছিলেন সবার আগে এসে…

Pin It
error: Content is protected !!